ইউটিউব চ্যানেল থেকে কিভাবে অনেক অর্থ উপার্জন করছে লক্ষাধিক মানুষ ।

ইউটিউব চ্যানেল থেকে কিভাবে অনেক অর্থ উপার্জন করছে লক্ষাদিক মানুষ 

YouTube যেই কথাটি অর্থাৎ যেই শব্দটি আমরা হয়তো ২০১০ সালের আগে জানতাম না তবে এই ২০২৩ এ একটা ছোট্ট শিশু ইউটিউব নাম জেনে গেছে। লক্ষাধিক মানুষ YouTube থেকে লাখ টাকা , অনেকে হাজার টাকা , অনেকে এক কোটি টাকা ইনকাম করছে প্রতি  মাসে। আপনি যদি  ইউটিউব থেকে অর্থ উপার্জন করতে চান তাহলে এই ব্লগটি প্রথম থেকে শেষ পর্যন্ত পড়ুন । আশা করি সমস্ত ধারণা সম্পূর্ণভাবে পরিস্কার হবে । 

এবার আপনাকে কি করতে হবে ?

 সবার প্রথমে আপনাকে ইউটিউব চ্যানেল খুলতে হবে । সাথে নাম ঠিক করতে হবে , একটা লোগো অথবা আপনার ছবি দিতে পারেন এবং কি কনটেন্ট পোস্ট করবেন সেটা আগে থেকে নির্ধারিত করতে হবে । কিভাবে এসব কাজ করবেন নিচে একটি ইউটিউবের লিংক দিয়ে দিয়েছি ।  ওখান থেকে দেখতে পারেন ।  কিভাবে চ্যানেল তৈরি করতে হয় ?  কিভাবে সেটিং করতে হয় ? ইউটিউব  লিংক 

এগুলো ভাবার পর আপনাকে মনস্থির করতে হবে ,  প্রতি সপ্তাহে অথবা প্রতিমাসে বা প্রতি সপ্তাহে দুটো করে ভিডিও আপলোড করতে হবে ।   সাথে ইউটিউব ভিডিওর সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন করাতে হবে । এবার জানা যাক আমরা সবাই তো কাজ করব তবে ইনকাম কিভাবে হয় ?  

সব সময় ভাববেন সোশ্যাল মিডিয়াতে ফলোয়ার যার বেশি তার ইনকাম তত বেশি । তবে নিম্নলিখিত কিছু ইনকামের দিক তুলে ধরা হলো । 

 গুগল এডসেন্স যখন আপনার চ্যানেলে ১০০০ সাবস্ক্রাইবার এবং ৪০০০ ঘন্টা ওয়াচ টাইম পূর্ণ হয়ে যাবে , তারপর গুগল এডসেন্স এপ্রুভ হয়ে গেলে আপনার ভিডিওতে অ্যাড আসবে এবং সেখান থেকে একটা রেভিনিউ প্রতি মাসে আপনার ব্যাংক একাউন্টে যুক্ত হবে । 

অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং কি ?  সেই নিয়ে আমরা একটা ব্লগ লিখেছি সেটি অবশ্যই পড়ে নিন নিচে লিংক দেওয়া রইল । ব্লগ কি ? কিভাবে ইনকাম করা যায় ? 

স্পন্সারশিপ যখন আপনার চ্যানেলে অনেক সাবস্ক্রাইবার হয়ে যাবে এবং পরিচিতি বাড়বে , তখন বিভিন্ন বিজনেস থেকে স্পন্সারশিপ আপনি পাবেন এবং তার থেকে  একটা মোটা আসবে । উদাহরণস্বরূপ মনে করুন আপনার একটা youtube চ্যানেল আছে এবং 10 হাজার জন সাবস্ক্রাইবার আছে ।  আমি ওয়েব ডেভেলপমেন্ট সার্ভিস প্রোভাইড করি , আমি আপনাকে বললাম আপনার ভিডিওর মাঝখানে কিছু সেকেন্ড আমার সার্ভিসের ব্যাপারে মানুষকে বলুন এবং আমার নাম্বারটি প্রোভাইড করুন । আমি আপনাকে পাঁচ হাজার টাকা দিচ্ছি অর্থাৎ এই ভাবেই স্পন্সারশিপ এর মাধ্যমে অর্থ উপার্জন করতে পারবেন।

এছাড়াও ইউটিউব মেম্বারশিপ ,  সুপার চ্যাট এবং সুপার স্ট্রাইকার এর মাধ্যমে লাইভ চ্যাটে কিছু ইলিজিবল ক্রাইটেরিয়ার মাধ্যমে আপনার চ্যানেলে থেকে অনেক অর্থ উপার্জন করতে পারবেন তবে এর জন্য অবশ্যই আপনাকে একটা সাবস্ক্রাইবার বেজ করতে হবে । 

প্রথমেই বলেছি জনতা যার , টাকা তার এই সোশ্যাল মিডিয়ায় । সেই জন্য প্রথমে অর্থের দিকে দেখে আপনাকে কাজ করে যেতে হবে ।  ফল আপনি অবশ্যই পাবেন , তবে ভিডিওতে ভিউজ আসছে না , ইনকাম আসছে না , সাবস্ক্রাইবার বাড়ছে না এগুলোর দিকে না তাকিয়ে কন্টিনিউ ভিডিও আপলোড করতে থাকুন । অবশ্যই আশা করি রেজাল্ট ভালো পাবেন এবং প্রফেশনাল youtube সার্ভিস এর জন্য যোগাযোগ করতে পারেন – ক্লিক করুন  

 

ধন্যবাদ ব্লগটি ভালোভাবে পড়ার জন্য ।  আশা করি ইউটিউব সম্পর্কে কিছু হলেও বোঝাতে পেরেছি । আমাদের সাথে যুক্ত থাকুন এবং বন্ধুদের মাঝে এই ব্লগটি শেয়ার করুন।

 

আরও জানুন –

ইউটিউব চ্যানেল থেকে কিভাবে অনেক অর্থ উপার্জন করছে লক্ষাধিক মানুষ ।

ই-বুক সেলিং করে উপার্জন করুন কোন খরচ ছাড়াই ?

স্টক মার্কেট থেকে কিভাবে উপার্জন করবেন ?

Leave a Comment

আরো পড়ুন