চাকরি নাকি ব্যবসা ? আপনার জন্য কোনটি ঠিক ?

চাকরি নাকি ব্যবসা ? আপনার জন্য কোনটি ঠিক ?

খবর দবর  অনলাইন ম্যাগাজিনের অনেক মানুষের রিকুয়েস্ট এই ব্লগটি লেখা হলো ।  আজকের আমাদের আলোচনার বিষয় আপনি জব করবেন নাকি ব্যবসা ?  কোনটি আপনার জন্য বেস্ট হতে চলেছে ।  ব্লগটি সম্পূর্ণ পড়ার জন্য অনুরোধ করা হলো । 

চাকরি নাকি ব্যবসা ? আপনার জন্য কোনটি ঠিক ?

প্রথমে জানুন ,  জব কি? 

 একটা বাচ্চা ছেলেও এটার  মানে জানে ।  জব মানে কাজ করা যে কোন কিছু ।  তার বিনিময়ে টাকা পাওয়া  । এটা দুই রকম – সরকারি চাকরি এবং বেসরকারি চাকরি । সরকারি চাকরি পেতে গেলে আপনাকে কি কি করতে হয় ?  তার জন্য পড়াশোনা করতে হবে  প্রচুর পরিমাণে । শেষ পর্যন্ত আপনার জব হতেও পারে আবার নাও হতে পারে । তবে লেগে থাকলে চার থেকে পাঁচ বছরের মধ্যে government job পেতে পারেন । যদি আপনি কোম্পানি জব করতে চান তাহলে বিভিন্ন কোম্পানিতে আপনার ইন্টারভিউ দিতে হবে ।  আপনাকে দেখে এবং আপনার ট্যালেন্ট দেখে তারা জব দেবে ।  অবশ্যই মনে রাখবেন একটা কোম্পানি যখন আপনাকে কুড়ি হাজার টাকা দেবে তাহলে আপনার মাধ্যমে আরো ৫০ হাজার টাকা মার্কেট থেকে তুলে নেবে ।  সে ক্ষেত্রে মানসিক চাপ অবশ্যই বাড়বে । 

 

জবের কিছু সুফল এবং কুফল-  যেটাকে তুলনাও বলা যেতে পারে হ্যাঁ আপনি সরকারি জব করলে মোটামুটি ভালো মাইনে পাবেন । সংসার ঠিকমতো ভালো চলবে ।  এবার আপনি কেমন থাকবেন সেটা আপনার উপরে ডিপেন্ড করবে । এটা বিভিন্ন চাকরি ভেদে হয়ে থাকে । আমার মনে হয় সব থেকে সুখের চাকরি সেটা হল মাস্টারি , রেল , ব্যাংক।  তবে কেন্দ্রীয় সরকারের কিছু চাকরি যেগুলো আপনাকে বাড়ি থেকে দূরে গিয়ে করতে হবে এবং আপনার ফ্যামিলি ভালো থাকবে ।  কিন্তু আপনি ভালোভাবে থাকতে পারবেন না । 

 

আর যদি কোম্পানির জব করে থাকেন তাহলে আপনার জীবন বলে কিছু আছে সেটা অনুভব করতে পারবেন না ।  কারণ সব সময় আপনার মাথার উপর একটা চাপ সৃষ্টি থাকবে ।  অফিসের ঘন্টা বাদ দিয়েও মনে হবে সব সময় আপনি কাজ করতে চলেছেন । সেই জন্য কোম্পানির চাকরিতে গেলে অবশ্যই ভেবে চিন্তে যাবেন ।  আর হ্যাঁ যদি ভালো পোস্ট পাওয়া যায় এবং নিজের অনেক ভালো যোগ্যতা থাকে সেক্ষেত্রে ভালো টাকা স্যালারি পেতে পারেন । তবে সাধারন মানুষ দের জন্য আমার মনে হয় কোম্পানির চাকরি যথেষ্ট বেশি কষ্টের ।  সেটা শারীরিক হোক বা মানসিক । 

চাকরি নাকি ব্যবসা ? আপনার জন্য কোনটি ঠিক ? 

ব্যবসা বলতে সবাই বুঝি । না বোঝার কিছু নেই । অল্প দামে কিনে বেশি দামে বিক্রি করার সিস্টেমই হল ব্যবসা ।  ব্যবসা এর কিছু সুফল এবং কুফল অবশ্যই আছে । ব্যবসা থেকে আপনি লাখপতি হতে পারেন , কোটিপতি হতে পারেন ,  আবার কিছু নাও করতে পারেন ।  সেটা আপনার উপর নির্ভর করে । এখানে কোন বাধাধরা ইনকাম থাকে না ।  আপনার মার্কেটিং , আপনার প্রোডাক্ট এর গুণগতমান,  সেলস প্রসিডিউর এর উপর নির্ভর করে ।  আপনার ব্যবসা ছোট হোক কিংবা বড় সেটা আপনারই । আপনি আপনার বস সবসময় মনে রাখবেন । একটা ছোট্ট দোকানদার হয়তো সম্মান এ জগতে তার অনেকটা কম থাকে কিন্তু  একজন চাকরিজীবীর  থেকে তার বেশি ইনকাম হয়  । নিচে আমি কিছু লাইভ  এক্সপেরিয়েন্স আপনারদের কাছে শেয়ার করছি ।  আশা করি ব্যবসা সংক্রান্ত অনেক সাহায্য হবে – 

 

আমি ব্যবসায়ীদের রিসার্চ করতে করতে ট্রেনের হকারীদের পর্যন্ত গিয়েছি ।  তাদের ইনকাম শুনতে , কেমন তাদের লাইফ স্টাইল ,  কিভাবে তারা চলে সমস্ত কিছু শুনতে । একদিন আমি রানাঘাট লোকালে  সেখানে একটা পেয়েরা বিক্রেতার  সঙ্গে পরিচিত হলাম । জিজ্ঞাসা করলাম এখানে কত টাকার পেয়েরা আছে এবং কত টাকা বিক্রি হতে পারে ? বলল ১৮০০ টাকার পেয়েরা  আছে এবং 4000 টাকা বিক্রি করবে ।  তাহলে তার ২ হাজার টাকার বেশি ইনকাম হয় একদিনে । ৩০ দিনে ৬০০০০ টাকার বেশি ইনকাম । তাহলে ভাবুন একজনের কোম্পানিতে নির্যাতিত না হয়ে নিজে স্বাধীনভাবে কিছু করাই শ্রেয় বলে আমার মনে হয় । তবে হ্যাঁ ব্যবসায় ওঠানামা অবশ্যই থাকবে । 

ব্যবসা এবং জবের কিছু ভালো দিক বা খারাপ দিক তুলে ধরলাম আশা করি ব্লগটি আপনাদের খুব পছন্দ হবে ।  যদি আমার সঙ্গে সহমত হয়ে থাকেন তাহলে এই ব্লগটি আপনার বন্ধুদের  পাঠিয়ে দিতে পারেন। 

চাকরি নাকি ব্যবসা ? আপনার জন্য কোনটি ঠিক ?

আরও জানুন –

ইউটিউব চ্যানেল থেকে কিভাবে অনেক অর্থ উপার্জন করছে লক্ষাধিক মানুষ ।

ই-বুক সেলিং করে উপার্জন করুন কোন খরচ ছাড়াই ?

স্টক মার্কেট থেকে কিভাবে উপার্জন করবেন ?

Leave a Comment

আরো পড়ুন