ঠাকুর ঘরের এই জিনিসগুলো নিয়ে আসতে পারে বাড়িতে সমস্যা ও অর্থনাশ

puja room can bring misfortune in your life

মানুষ তার জীবনদশায় কর্মফল অনুযায়ী ফল পেয়ে থাকে, বলা ভালো প্রতিটি করা কর্মই ঠিক করে দেয় তিনি কি প্রকার জীবন নির্বাহ করবেন। বহু ক্ষেত্রে দেখা গিয়েছে সব কিছু ঠিক থাকা সত্ত্বেও বারবার তাকে বিপদের সম্মুখীন হতে হচ্ছে। কারুর আবার অর্থনৈতিক অবস্থাও বেশ ভালো কিন্তু অযাচিত কিছু সমস্যায় জেরবার হয়ে বারবার অর্থনাশ ঘটছে। কেন এমন ঘটে তা জানতে আমরা অনেক বিশেষজ্ঞর দ্বারস্থ হই। কিন্তু অনেক সময় কোন সুরাহা হয় না। এই সমস্যা গুলো হয় আমাদের কিছু জিনিস বাড়িতে থাকার জন্য। জেনে নিন কি কি কারণে হয় এই সমস্যা –

ঠাকুর ঘর গৃহের একটি বিশেষ স্থান। তাই প্রতিটি বাড়িতে ঈশ্বর অধিষ্ঠিত স্থানটি কে শুদ্ধাচার বেষ্টিত রাখা উচিত। এই ঠাকুর ঘরের কিছু উপাচার আছে যেমন ঠাকুর ঘরে এমন কিছু ঠাকুরের ছবি বা প্রতীকী ছবি রাখা হয়ে থাকে যা কখনোই ঠিক নয়, এরকম ভুল জীবনের প্রতিটি পর্যায় কে বিপর্যস্ত করে তুলতে পারে।

জীবন কে সুখ শান্তি মুখী করে তুলতে বিশেষ কিছু ঠাকুর ঘরের নিয়ম মেনে চলাই শ্রেয়। যা আপনার সংসারে এনে দেবে শান্তি ও সমৃদ্ধি। ঠাকুর ঘরে এমন কিছু ঠাকুরের ছবি আছে যেগুলি কে পাশে বসিয়ে রাখলে হতে পারে সংসারে জটিল সমস্যা। কি সমস্যা? আসুন জেনে নেয়া যাক !

যদি আপনার ঠাকুর ঘরে শিবলিঙ্গ থাকে এবং আপনি তার সঠিকভাবে পূজা-অর্চনা না করেন তাহলে আসতে পারে বিপদসমূহ, নাশ হতে পারে গৃহ শান্তি।

ঠাকুর ঘর কখনোই যেন রান্নাঘরের বিপরীতে বা রান্নাঘরের এর পাশাপাশি জায়গায় না হয় বা বাথরুমের আশেপাশে ঠাকুর ঘর কখনোই না।

ঠাকুর ঘর সব সময় তালা শিকল দ্বারা বন্ধ রাখবেন না। মন্দিরের মতো বাড়ির পূজার ঘরে অনেকগুলি বিগ্রহ একসঙ্গে রাখা ঠিক নয় কারণ মন্দিরের বিগ্রহ রাখার ক্ষেত্রে বেশ কিছু নিয়ম আছে তা না জেনে বাড়িতে সেগুলি রাখতে যাবেন না। সেক্ষেত্রে সঠিক নিয়ম জেনে সেগুলি পালনের মাধ্যমেই রাখাই উচিত কার্য।

শ্রী কৃষ্ণের বন্ধুত্ব, শেখার মতো গল্প- সত্যিকারের বন্ধু কারা হয় এই গল্প থেকে জানুন

Facebook
WhatsApp
Twitter
LinkedIn
Telegram
Email
Pinterest
Twitter