ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য উপার্জনের পাঁচটি উপায় যেগুলি থেকে অনায়াসে ইনকাম করা সম্ভব ?

ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য উপার্জনের পাঁচটি উপায় ।

মাধ্যমিক , উচ্চ মাধ্যমিক পড়ার পর থেকে খরচের পরিমাণ বৃদ্ধি পেতে থাকে । আর সেই জন্য অনেক ছাত্রছাত্রীরা তার হাত খরচ ওঠানোর জন্য  ইনকামের পথ খুঁজতে ব্যস্ত থাকে ।  আজকে আলোচনা করব পড়াশুনার পাশাপাশি অবসর সময়ে কিভাবে উপার্জন করা যায় । 

 

ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য উপার্জনের পাঁচটি উপায় যেগুলি থেকে অনায়াসে ইনকাম করা সম্ভব ?

Five ways of earning for students from which it is possible to earn easily?

টিউশনি পড়ানো – পড়াশোনা করে কিন্তু টিউশনি পড়াইনি হয়তো খুব কম ছেলে মেয়ে আছে ।  যদি আপনি হয়ে থাকেন শহরের দিকে তাহলে অনায়াসে একটা বাচ্চা পড়ালেই দুই থেকে তিন হাজার টাকা পেয়ে যাবেন  । আর যদি গ্রামের দিকে থাকেন তাহলে হয়তো একটু কম পাবেন , তবে একটা ব্যাচ করে নিয়ে তার ভেতর পড়াতে পারেন ।  আসল কথা এই যে ,  বাড়িতে কোচিংয়ের মাধ্যমে অথবা সরাসরি শিক্ষার্থীর বাড়ি গিয়ে পড়িয়ে হাত খরচের টাকা তুলতে পারবেন । 

 

ইউটিউব – বর্তমানে বহু ছাত্র-ছাত্রীদের জীবন গড়ে দিয়েছে এই ইউটিউব প্লাটফর্ম ।  আপনার যেটাতে ইন্টারেস্ট আছে , সেই বিষয়ে ভিডিও তৈরি করতে হবে । হতে পারে টেকনোলজির উপর , হতে পারে শিক্ষার উপর , হতে পারে অন্য কিছুর উপর । অনেক যুবক যুবতী এই  প্ল্যাটফর্ম কে কাজে লাগিয়ে খুব ভাল জায়গায় চলে গেছে । আপনাকে একটা লাইফ উপহার দিতে পারে এই ইউটিউব । এটা  এমন একটা প্ল্যাটফর্ম যেখান থেকে দৈনন্দিন খরচ তো পার করতেই পারবেনই । এছাড়াও পরিবারকে সাহায্য করতে পারবেন ।  আপনি যদি জানতে চান ,  কীভাবে ইউটিউব শুরু করবেন  ? তাহলে এই ব্লকটি অবশ্যই পড়ুন  ( ক্লিক করুন)  । তারপর যে কোন একটা ভিডিও দেখে নিন কিভাবে ইউটিউব চ্যানেল করতে হয় । 

 

মেকআপ আর্টিস্ট এবং মেহেন্দি আর্টিস্ট –  এটা বিশেষ করে মেয়েদের জন্য খুব ভালো একটা ইনকামের পথ ।  সবার প্রথমে যেটা আপনাকে করতে হবে –  মেকআপ আপনাকে শিখতে হবে । সরকারিভাবেও অনেক জায়গায় শেখানো হয় বা আপনি যেকোন জায়গা থেকে শিখতে পারেন । তবে হ্যাঁ অবশ্যই যেন সার্টিফিকেট প্রদান করা হয় । এরপর আপনার facebook  বা youtube এ আপনার হাতের কাজ কিছু পোস্ট করতে হবে ।  সেখান থেকে অনায়াসে আপনি কাস্টমার পাবেন । আর সব সময় মনে রাখবেন প্রথমে শিখতে হবে , তারপরে ইনকাম আসবে । আর যদি এটা থেকে আপনার লাইফ তৈরি করতে চান তাহলে অবশ্যই এটার উপর খুব ভালোভাবে ফোকাস করতে হবে । 

 

ফ্রিল্যান্সিং – ফ্রিল্যান্সিং খুব জনপ্রিয় বিষয় এই বর্তমান যুগে । ফ্রিল্যান্সিং এর অর্থ আপনি বাড়িতে বসে বাইরের কোন মানুষের জন্য হয়ে কাজ করে দেবেন কম্পিউটার বা মোবাইলের মাধ্যমে যেটাকে ফ্রিল্যান্সিং বলা হয়। এর জন্য প্রথমে আপনাকে অবশ্যই কাজ শিখতে হবে ।  যেমন –  ওয়েব ডেভেলপমেন্ট  , গ্রাফিক্স ডিজাইন , ডিজিটাল মার্কেটিং ইত্যাদি । যে কোন একটি বিষয় ভালোভাবে শিখে গেলে মার্কেটপ্লেস  এ রেজিস্টার করাতে হবে যেমন ফাইবার,  আপওয়ার্ক,  ফ্রিল্যান্সার এগুলোতে । তারপর আপনি ওখান থেকে কাজ পাবেন ।  সেই কাজগুলো করলে আপনার ব্যাংক একাউন্টে আপনি পেমেন্ট পাবেন  । আর ওয়েব ডেভেলপমেন্ট এবং ডিজিটাল মার্কেটিং  শেখার জন্য আমাদের সাথে যোগাযোগ করতে পারেন ।  যোগাযোগ করতে (ক্লিক করুন) । 

 

টেলি কলার-  সমস্ত কোম্পানি তাদের প্রমোশনের জন্য অথবা সাপোর্টের জন্য কিছু টেলিকলার হায়ার করে থাকেন ।  আপনাকে ফোনে কথা বলতে হবে গ্রাহকের সাথে  যেটাকে গ্রাহক সেবা বলা হয়  । এটা আপনি বাড়ি থেকেই করতে পারবেন অথবা অফিসে গিয়েও করতে পারেন ।  তবে যেহেতু আপনি একজন স্টুডেন্ট সেক্ষেত্রে বাড়িতে বসে করতে পারেন এমন কাজ খোঁজ করবেন ।  এর জন্য আপনাকে বিভিন্ন ওয়েবসাইটে যেতে হবে যারা জব প্রোভাইড করছে । মনে রাখতে হবে কোন জব পাওয়ার আগে টাকা দেবেন না । সেটা রেজিস্ট্রেশন চার্জ বাবদ অথবা ড্রেসের চার্জ বাবদ । কোন টাকা দেবেন না ,  আপনার স্যালারি পাওয়ার আগে পর্যন্ত । 

 

আজকে আলোচনা করা হল ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য উপার্জনের পাঁচটি উপায় যেগুলি থেকে অনায়াসে ইনকাম করা সম্ভব ? 

Leave a Comment

আরো পড়ুন