গ্রামে ব্যবসার সেরা ৫টি আইডিয়া

গ্রামে ব্যবসার সেরা ৫টি আইডিয়া

এক শ্রেণীর মানুষ আছে যারা ভাবে গ্রামে থেকে কিছু করা সম্ভব নয় অর্থাৎ অল্প বিনিয়োগে কোন ব্যবসা শুরু করলে লস হবে সেই ভয়তেই অনেক মানুষ পিছিয়ে পড়ে ।  আপনাদেরকে কিছু কথা শোনানো যাক । প্রতি গ্রামে ভালো করে লক্ষ্য করুন কিছু চাকুরিজীবী আছে ,  তার মধ্যে government চাকরি আবার অনেকে কোম্পানির চাকরি , আবার অনেকে ছোটখাটো ব্যবসা করছে । সবার আর্থিক অবস্থাটা একটু ভাবুন। ভাবার পরে আপনি ব্যবসা করবেন এটা সিদ্ধান্ত নিন এবং আপনার যদি সিদ্ধান্ত নেওয়া  হয়ে থাকে যে আপনি ব্যবসা করবেনই খুব কম পুঁজিতে । 

 তাহলে নিচের দেওয়া এই পাঁচটি ব্যবসা শুরু করতে পারেন । যেখানে মূলধন অনেক অল্প নিয়েই গ্রামে থেকে ব্যবসাটি করা যায় । 

 

চা এর দোকান –  এখন অনেকে বলবে শেষ পর্যন্ত চায়ের দোকান  দেবো ?  উত্তর – হ্যাঁ দেবেন । কেন ? যারা চা বিক্রি করে তারা কি মানুষ নয় ? তারা ইনকাম করে না ?  আপনার দরকার ইনকাম যখন আপনার কাছে টাকা থাকবে না তখন সম্মান নিয়ে কিছু করতে পারবেন না ।  আর এটাই আপনার ব্যবসার মূল লক্ষ্য এটা ভেবে এগোতে হবে । সারাদিনের কাজ করুন করার পর সন্ধ্যার সময় বাড়িতে বসে থাকেন সেই সময় একটু চায়ের দোকানে বসুন । গ্রাম অঞ্চল বলুন কিংবা শহর অঞ্চল চা বিক্রি হবেই এবং তার সাথে কিছু এক্সট্রা জিনিস সেল করতে থাকুন যেমন – বিস্কুট , নেশা জাতীয় ছোটখাটো দ্রব্য ইত্যাদি । প্রতিদিন ২০০ টাকা করে হলে ৩০ দিনে ৬০০০ টাকা হয়েছে । এবার ভাবুন বাড়িতে বসে থাকলে ছয় হাজার টাকা আসতো ?  উত্তর –  না । তাহলে খরচ পাতি বেশি লাগছে না যদি ইচ্ছা থাকে খুব কম খরচে কিছু শুরু করার তাহলে এটা আপনার জন্য একটা ভালো উপায় হতে পারে । 

 

 দুধের ব্যবসা –  গ্রামের অনেকাংশ জায়গায় গরু ,  মোষ , ছাগল দেখতে পাওয়া যায় । অনেক দুধ পাওয়া যায় এবং আপনি এই দুধ  সংগ্রহ করুন ।  প্রতিটি মিষ্টির দোকান কিংবা কোন সমিতির সঙ্গে যুক্ত হন । যেখানে দুধ নেয় ,  আপনি একটু টাউনের দিকেও নিয়ে যেতে পারেন ,  ছানা তৈরি করে বিক্রি করতে পারেন । এখন আপনার মনে হতেই পারে দুধ বিক্রি করে বা ছানা বিক্রি করে কত ইনকাম করা যায় ?  আমি একটা উদাহরণ দিই আপনাদের – আমরা শিয়ালদা গিয়েছি বা অনেক স্টেশনে দেখি ছানা নিয়ে অনেকে দৌড়াই । এবার ভাবুন তারা প্রতিদিন এইভাবে ছানা নিয়ে যাচ্ছে , আবার বাড়ি ফিরছে । তাদের ইনকাম নেই ? অবশ্যই – আছে ।  তাদের ইনকাম শুনলে আপনার মাথায় হাত পড়বে ।  প্রায় হাজার থেকে দুই হাজার টাকা ইনকাম । তবে এই ব্যবসায় একটু বিচার বিবেচনা করে ,  মার্কেট বুঝে তারপরে নামবেন।

 

ওষুধের দোকান-  গ্রামের ভেতর ওষুধের দোকান করতে পারেন ।  প্রথমে ভালোভাবে কিছুদিন কোন ওষুধের দোকানে থেকে এক্সপেরিয়েন্স করে তারপর ওষুধের দোকান করতে পারেন । তবে যদি আপনি রোডে দোকান করেন তাহলে অবশ্যই লাইসেন্স দরকার। কিন্তু গ্রামে এটি শুরু করতে পারেন।

 

পল্টি ফার্ম – প্রথমে আপনাকে পোল্ট্রি ফার্ম করতে হবে এবং  সেই সংস্থার সাথে আপনি যোগাযোগ করুন । যদি যোগাযোগ করতে সমস্যা হয় তাহলে নিকটবর্তী যেসব পোল্ট্রি ফার্ম আছে তাদের সঙ্গে যোগাযোগ করুন ।  আশা করি আপনার কাজটি হয়ে যাবে এবং এখানে অনেক শতাংশ লাভ আছে । 

 

রিটেল শপ –  এটা সম্পূর্ণ নির্ভর করে আপনার গ্রামে কয়টি রিটেল শপ আছে অর্থাৎ যদি মুদিখানা দোকান খুব কম থাকে এবং তাদের সঙ্গে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে পারেন ।  তাহলে এই ব্যবসাটি আপনি করবেন।  তবে বাকি দেওয়ার দিক থেকে একটু সতর্ক থাকবেন । আশা করি কিছু ব্যবসার আইডিয়া এই ব্লগের মাধ্যমে দেওয়া হলো । যদি ভালো লেগে থাকে , তাহলে বন্ধুদের মাঝে শেয়ার করুন । হয়তো এই ছোট্ট ব্লগ আপনার কোন বন্ধুর জীবন বদলে দিতে পারে ।  ধন্যবাদ । 

আরও জানুন –

ইউটিউব চ্যানেল থেকে কিভাবে অনেক অর্থ উপার্জন করছে লক্ষাধিক মানুষ ।

ই-বুক সেলিং করে উপার্জন করুন কোন খরচ ছাড়াই ?

স্টক মার্কেট থেকে কিভাবে উপার্জন করবেন ?

Leave a Comment

আরো পড়ুন