তাম্মা তাম্মা গানে মাধুরীর সাথে নাচতে গিয়ে কি অবস্থায় পরেছিলেন সঞ্জয়

madhuri dixit and sanjay dutt tamma tamma

মাধুরীর সাথে তাল মিলিয়ে নাচতে হবে শুনে ভিমড়ি খাওয়ার জোগাড় হয় তার। শেষে কোনো উপায় না পেয়ে সঞ্জয় দত্ত শুরু করেছিলেন নাচ প্র্যাকটিস। মাধুরীর সাথে তার নাচের ভয় কাটলো দুই এক দিনে নয়, টানা ষোলো দিন পর।

সঞ্জয় দত্ত ও মাধুরী দীক্ষিত একসাথে নাম দুটোর মধ্যে রয়েছে অন্য স্বাদ,ভিন্ন গল্প। তাদের প্রেম কাহিনী ভক্তদের মুখে মুখে ঘুরে বেড়ায়।রিয়েল লাইফ এ খুব সুন্দর ভাবে জুটি বাধা এই জুটির রিল লাইফ খুব স্বাভাবিক ছন্দময় ছিল না। কারণ সঞ্জয় দত্তের সমস্যা ছিল একটাই……..

মাধুরী মানেই ড্যান্স, ঝড়ের গতি কেও হার মানায় তার ড্যান্স নাম্বারের ঝড়। সমসাময়িক সময়ে তাকে টেক্কা দেওয়া অভিনেতার ছিল অভাব। ঠিক এমন সময় হাতে এসে থানেদার ছবির কাজ।

১৯৮৯ এ প্রথম জুটি বেঁধে এক সাথে ছবির কাজ শুরু করেন মাধুরী দীক্ষিত ও সঞ্জয় দত্ত। তাদের সম্পর্কের গভীরতা খবর তখন প্রায় সকলের কানে পৌঁছে গিয়েছে। তারা একসাথে সেই সময় হিট জুটি। তবে ছবি হিট করতে হলে হলে অবশ্যই চাই মাধুরীর মাধুর্য্য অর্থাৎ তার ড্যান্স নাম্বার। মাধুরীর কোমর দোলানো নাচের দৃশ্যের জন্য তখন ফ্যান কুল পাগল। তাই চিত্রনাট্যের কথা মাথায় রেখে রাখা হলো একটি ডান্স নাম্বার। কিন্তু বিপত্তি ঘটায় ছবির নায়ক খোদ সঞ্জয় দত্ত। মাধুরীর সাথে তাল মিলিয়ে নাচতে হবে শুনে ভিমড়ি খাওয়ার জোগাড় হয় তার। শেষে কোনো উপায় না পেয়ে সঞ্জয় দত্ত শুরু করেছিলেন নাচ প্র্যাকটিস। মাধুরীর সাথে তার নাচের ভয় কাটলো দুই এক দিনে নয়, টানা ষোলো দিন পর। ষোলো দিন প্র্যাকটিস চালানোর পর অবশেষে তিনি সেটে হাজির হন। তারপর তৈরি হয়ে ছিল তাম্মা তাম্মা গানটি। আজও নব্বই এর দশকের গানের লিস্টে সেরা গান হয়ে আছে এই গানটি।

সম্প্রতি নতুন মোড়কে মুড়ে গানটিকে রিমিক্স করে “বদ্রিনাথ কি দুলানিয়ে” ছবিতে ব্যাবহার করা হয়েছে। সেই রিমেক টিও বেশ পছন্দ করেছেন দর্শক মহল। মন ছুঁয়ে গেছে সকলের। যদিও এই গানটির সাথে মাধুরী ম্যাজিক এ কাবু গোটা দুনিয়া। এই গানটা আজও সমান ভাবে ঝড় তুলতে পারে।মাধুরীর অন্যতম সেটা ড্যান্স নাম্বার এটি।

Facebook
WhatsApp
Twitter
LinkedIn
Telegram
Email
Pinterest
Twitter