Friday, October 7, 2022
Homeআধ্যাত্মবাদনবরাত্রির পৌরাণিক কাহিনী ও বিভিন্ন রাজ্যর উৎসব

নবরাত্রির পৌরাণিক কাহিনী ও বিভিন্ন রাজ্যর উৎসব

Navaratri Story : ভারতে উদযাপিত বেশিরভাগ উৎসব এক বা দুই দিন স্থায়ী হয় তবে এখন আমরা যে উৎসব নিয়ে আলোচনা করব সেটা নয়টি রাত্রি ব্যপি পালিত হয় । হ্যাঁ নয় দিন ও নয় রাতের উৎসবে নাচ, গান, মিষ্টি এবং পরম শক্তিমান দেবীর পূজা। এটি নবরাত্রি। নয় রাতের উৎসবে রয়েছে পূজা, ডান্ডিয়া, ঢোল এবং প্রচুর খাবার। এটি সারা ভারতে বিভিন্ন উপায়ে পালিত হয়। চলুন জেনে নেওয়া যাক বিভিন্ন প্রদেশে কীভাবে পালন করা হয় ও এই নবরাত্রির পৌরাণিক কাহিনী। 

কলকাতায়: কলকাতায়, দুর্গা মায়ের সুন্দর মূর্তি সহ বিশাল প্যান্ডেল স্থাপন করা হয়। সারা রাত দেবী দুর্গার স্তোত্র পাঠ করেন উপাসকরা এছাড়া পূজা প্রদর্শন, সংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, মেলা বিভিন্ন ভাবে উপভোগ করেন সবাই।

তামিলনাড়ু ও কর্ণাটকে: তামিলনাড়ু ও কর্ণাটকে নয় দিন লোকে পুতুল প্রদর্শন করে, যা গোম্বে হাব্বা (কন্নড়) এবং বোম্মা কোলুভু (তেলেগু) নামে পরিচিত। মাটির তৈরি রঙিন পুতুল সুন্দর করে সাজিয়ে তারপর বাড়িতে প্রদর্শন করা হয়। এই পুতুলগুলি বেশিরভাগই পুরাণ, ভারতীয় পুরাণ, মহাকাব্য, ইতিহাস বা এমনকি ক্রিকেট, ক্রিয়াকলাপ ইত্যাদির মতো সমসাময়িক ঘটনাগুলিকে নিয়ে তৈরি ৷ কর্ণাটকের বিশ্ববিখ্যাত দশেরার শোভাযাত্রা রয়েছে দেবী চামুণ্ডেশ্বরীর মূর্তি হাতে নিয়ে। এটি মহীশূরের রাজারা অনেক আগে শুরু করেছিলেন।

গুজরাট ও মহারাষ্ট্রে: গুজরাট ও মহারাষ্ট্রে দেবীকে ‘কলশ’ বা একটি শুভ পাত্রের রূপ দেওয়া হয়। তারপর লোকেরা নাচ, গান এবং বিভিন্ন মন্ত্র দিয়ে এটিকে পূজা করে। এই সুন্দর ঐতিহ্য 9 দিন এবং রাত ধরে চলে। দশম দিনে দশেরা বা বিজয় দশমী হিসাবে পালিত হয়, যেদিন ভাল মন্দের উপর জয়লাভ করে। ভারতীয় মহাকাব্য রামায়ণ অনুসারে দশেরা ছিল সেই দিন যখন রাম রাবণকে হত্যা করেছিলেন। অনেক রাজ্য এই বিজয় উদযাপনের জন্য দুর্দান্ত অনুষ্ঠানের আয়োজন করে, যাকে “রাবন দেহান”ও বলা হয়। 

কিছু জায়গায় তারা রাম-লীলার আকারে ভগবান রামের জীবনকেও রূপায়ণ করে, যেখানে ভাল মন্দকে পরাজিত করে এমন গল্প দেখান হয়। 

Mythology Story of Navaratri 

নবরাত্রি হল এই মহান দেবীর বিভিন্ন রূপ উদযাপন করা। রূপগুলি হল মহাকালী, মহা লক্ষ্মী, মহা সরস্বতী। মহিষাসুর নামক এক নৃশংস রাক্ষস বিশ্ববাসীকে এবং দেবতাদের উপর আক্রমণের হুমকি দিয়েছিল। তিনি ইন্দ্রলোক দখল করেন এবং অন্যান্য দেবতাদের তাড়িয়ে দেন। তখন সব দেবতারা গিয়ে ব্রম্ভা, বিষ্ণু ও মহেশ্বরের কাছে গেলেন তাদের রক্ষা করার জন্য তখন এই তিন দেবতার জ্যোতি থেকে সৃষ্টি হল দেবী দুর্গার। তারপর এই দেবী গিয়ে যুদ্ধ করেন মহিষাসুরের সাথে এবং বধ করেন মহিষাসুরকে। এই ভাবে মা দুর্গা স্বর্গকে রক্ষা করেছিলেন।  

Anol A Modak
Author: Anol A Modak

Film Maker, Writer, Astrologer, Vastu Consultant, Hypnotherapist, Entreprenuer

LEAVE A REPLY



Please enter your comment!
Please enter your name here

Most Popular

Recent Comments

%d bloggers like this: